অসাম্প্রদায়িক চেতনা আমাদের বড় অর্জন: লাকসাম সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিজয়া দশমীর অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম

ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে স্বাধীনভাবে ধর্ম পালন ও সম্প্রীতি বজায় রাখা বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় একটা অর্জন। সব সময় বলি ধর্ম যার যার উৎসব সবার। আমাদের উৎসবগুলোতে আমরা সবাই এক হয়ে উদযাপন করি। এটাই হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় একটা অর্জন, আমরা অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়ে চলতে শিখেছি। বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ। আমরা ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাই এক হয়ে পথ চলি।

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) বিকেলে লাকসাম সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিজয়া দশমীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রত্যেকের ধর্মকে আমরা সম্মান করি এবং আমরা চাই আমাদের দেশে শান্তি বজায় থাকুক। এদেশে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক, দুর্নীতি সমাজকে নষ্ট করে, দেশকে নষ্ট করে, পরিবারকে নষ্ট করে। বাংলাদেশের অগ্রগতি অব্যাহত থাকবে এটাই আমরা চাই। লাকসাম-মনোহরগঞ্জের উন্নয়নের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। এখানে কোনো ধর্ম ও বর্ণের ভেদাভেদ থাকবে না।

লাকসাম পূজা উদযাপন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা. শচিন্দ্র দাসের সভাপতিত্বে ও পেশাজীবী পরিষদের সভাপতি ডা. রাজীব সাহার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক (ডিসি) আবুল ফজল মীর, পুলিশ সুপার (এসপি) সৈয়দ নুরুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইউনুস ভূঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান মহব্বত আলী, পৌর মেয়র আহ্বায়ক অধ্যাপক আবুল খায়ের, নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম সাইফুল আলম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি তাবারক উল্লাহ কায়েস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা, আওয়ামী লীগ নেতা প্রবীর সাহা, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মো. দলিলুর রহমান মানিক, সদস্য মনিরুল ইসলাম রতন প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here