আহমেদ সাব্বির রোমিও : চট্টগ্রাম নাগরিক উদ্যোগের আহ্বায়ক বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সংগঠক, পেশাজীবী নাগরিক সংগঠক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী এবার দিলেন এক নতুন নাগরিক প্রস্তাবনা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতির উদ্দেশ্যে প্রদত্ত ভাষণে জাতীয় সম্পদের সর্বোচ্চ ব্যবহারের আহবান যথার্ত করে তুলতে ত্রাণ তৎপরতায় সারাদেশে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটদের মাঠে নামনোর প্রস্তাবনা দিয়েছেন রিয়াজ । এক ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রীসহ দায়িত্বশীলদের এ ব্যাপারে জাতীয় স্বার্থেই সহসা সিদ্ধান্ত গ্রহণের অনুরোধ জানিয়েছেন এই নাগরিক সংগঠক। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ভিডিওবার্তা ভাইরালও হয়েছে।

পেশাজীবী নেতা রিয়াজ হায়দার চৌধুরী বলেছেন, সারাদেশে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সহ ৬৮৬ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রয়েছেন। অন্যদিকে দেশজুড়ে ৬৪ টি জেলায় আছে ৪৯২ টি উপজেলা। কাজেই প্রতিটি উপজেলায় একজন করে অন্তত জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ত্রাণ কার্যক্রম মনিটরিং নিশ্চিত করা সম্ভব।

চট্টগ্রাম নাগরিক উদ্যোগের আহ্বায়ক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী আরো বলেন, সারাদেশে নগণ্য কিছু ব্যতিক্রম বাদ দিয়ে জুডিশিয়াল সার্ভিসের ব্যাপক সুনাম রয়েছে। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা, যুদ্ধাপরাধ বিচার, ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলা, জঙ্গিবিরোধী মামলাগুলোকে চাঞ্চল্যকর প্রায় সবকটি মামলায় বিচারিক কার্যক্রমে জড়িতদের সুনাম রয়েছে । তাঁরা রাষ্ট্রের কাছে জনগণের কাছে পরীক্ষিত, নির্ভরযোগ্য।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেখানে জাতির উদ্দেশ্যে প্রদত্ত ভাষণে সমন্বিত ত্রাণ কাজের উপর গুরুত্বারোপ করেছেন, সেখানে রাষ্টের এই পরীক্ষিত সবল এই ভিত্তিমূলটিকে মাঠে কাজে লাগানো প্রয়োজন। রাষ্ট্রীয় ছুটির আওতায় বিচারিক আদালতে যখন কার্যক্রম নেই, তখন তাঁদের এই সুসংঘটিত শক্তিকে মাঠ পর্যায়ে মনিটরিং কাজে নিবেদিত করা গেলে সরকারের কাজের স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে’ বলে নাগরিক সমাজ আশা করেন।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী এর আগে অপর একাধিক ভিডিও বার্তায় স্বাস্থ্য খাতে চরম নৈরাজ্য, সাধারণ মানুষের চিকিৎসা অপ্রাপ্তি ও এই সংকট থেকে মুক্তি সহ করোনাময় সময়ে নানা সমস্যা নিয়ে নাগরিক প্রস্তাবনা তুলে ধরেন এই সংগঠক। স্বাস্থ্যখাতে অরাজকতা রোধ ও সেক্টরটিতে মাফিয়া চক্রের অপতৎপরতা ঠেকিয়ে দিতে পুরোপুরি রাষ্ট্রায়ত্তকরণ, প্রয়োজনে সেনা তত্ত্বাবধানে পরিচালনার নাগরিক প্রস্তাবনাও দেন।

রিয়াজ হায়দার চৌধুরী বর্তমানে তিনি সাংবাদিকদের জাতীয় সর্বোচ্চ সংগঠন বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম নাগরিক উদ্যোগের আহ্বায়ক।এর আগে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি , সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দফায় দফায় নির্বাচিত হন। এছাড়া তিনি পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য। গণমাধ্যমে, একাধারে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কাজ করা সিনিয়র সাংবাদিক, নাগরিক সংগঠক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী অন্তত দুই দশক ধরে মাঠে ব্যাপক সক্রীয়। বাংলাদেশের অন্যতম সক্রিয় এই পেশাজীবী মানুষের অধিকার, মর্যাদা, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও মানবাধিকার নিয়ে কাজ করেছেন । জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতেও সজাগ সক্রীয় তিনি ।

শ্রমিক শ্রেণীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় অত্যন্ত উচ্চকণ্ঠ এই সংগঠক সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সাথেও নানাভাবে জড়িত । উন্নয়ন আন্দোলন ও নানা সামাজিক-নাগরিক সংকটে মাঠে থেকে কাজ করেছেন। বৈশ্বিক মহামারী করোনায় চিকিৎসা,খাদ্য নিরাপত্তা সহ মানুষের ন্যায্যতা ও সাম্যতা নিয়ে সোচ্চার এই মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। চট্টগ্রামের মানুষের প্রতি বৈষম্যের প্রতিবাদেও উচ্চকণ্ঠ এবং মানুষের সাম্যতা ন্যায্যতা প্রতিষ্ঠায় সক্রিয়। বাণিজ্যিক রাজধানী খ্যাত চট্টগ্রামকে প্রকৃতই ‘বাণিজ্যিক রাজধানী’ করার লক্ষ্যেও দীর্ঘদিন ধরে কাজ করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here